শিক্ষক

বাংলাদেশের বর্তমান পেক্ষাপটে শিক্ষক ধারাবাহিক প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত হতে হবে।

Shahzaman Shuvoh one comments

সমাজের প্রতিবিম্ব হলেন শিক্ষক। শিক্ষকগণ যদি ক্লাশে শিক্ষার্থীদেরকে ভালভাবে নৈতিক জ্ঞান দিতে পারে তাহল সমাজ হয়ে উঠবে আলোকিত। শিক্ষার্থীর নৈতিক বিচ্যুত যদি সমাজ বা পরিবেশের জন্য হয়ে থাকে তদুপরিও শিক্ষকগণ কিঞ্চিত দ্বায়ী কারণ তাদের শিক্ষার্থীই বর্তমান সমাজ। সাম্প্রতি দুদক শিক্ষককের দূর্ণীতি নিয়ে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করে সমালোচিত হয়েছে। এর কারণ অবশ্য শিক্ষক নয় দুদকই দায়ী। শিক্ষক সমাজ দুদকের ভাল কাজকে স্বাগত জানায়।
শিক্ষকতা একটি মহান ব্রত। শিক্ষক সমাজের শ্রেষ্ঠ মডেল। শিক্ষকের সমস্ত আচরণ সমাজকে প্রভাবিত করে। এই জন্য শিক্ষকের আচরণ হতে হবে শ্রেষ্ঠ আচরণ। যাদের এই ধরনের আচরণের অধিকারী হওয়া সম্ভব, তারাই হবে শিক্ষক, অন্যদের এ পেশা থেকে দূরে থাকা শ্রেয়। ইদানীং কিছু অযোগ্য লোক এই পেশায় ঢুকে পেশার মর্যাদাহানি করছে, এদের কারণে দেবতার মত শিক্ষকেরা আজ পথে ঘাটে অপমানিত হচ্ছে। সমাজ শিক্ষকদের প্রাপ্য মর্যাদা দিচ্ছে না, ফলে অনেকে শিক্ষকতা পেশার প্রতি আগ্রহ হারাচ্ছে। অযোগ্য লোকদের আধিক্যে সমাজের লোকেরা শিক্ষকদেরকে ক্রিমিনাল ভাবতে শুরু করেছে। শিক্ষকের পেছনে গোয়েন্দা লাগানোর ইংগিত দিয়েছেন বাংলাদেশের একজন মন্ত্রি। সমাজে শিক্ষকদের মর্যাদা না থাকলে, তাদের পক্ষে সুশিক্ষিত জাতি গঠন করা সম্ভব নয়। Read More

জনপ্রিয় শিক্ষক মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন

Shahzaman Shuvoh No Comments

মোশারফ হোসেন স্যারের এই বিদায়ের পর মজিদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র/ছাত্রী আরেকবার বিদায় অনুষ্ঠান করে ক্রেস্ট, মানপত্র এবং উপহার সামগ্রী দিয়ে বিদায় জানানো হয়। তবে এই ছাত্র/ছাত্রীরা বলেন এটা কোন বিদায় নয় আমরা প্রতিটি বছর আপনার বাড়িতে বেড়াতে যাব। বিদায়ী বক্তব্যে মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেন বলেন, আমি একজন ক্রীড়া শিক্ষক হয়ে তোমাদের মনে যে ভালবাসার ঠাঁই পেয়েছি তা আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ অর্জন। এই বিদায়ী অনুষ্ঠানে আমি আমার স্ত্রী,কন্যা সাথে নিয়ে এসেছে, আমি তাদেরকে (স্ত্রী,কন্যা ) বলি দেখ, আমার ছেলে মেয়ে আমাকে কত ভালবাসে। মোশারফ হোসেন স্যারের আবেগঘন বক্তব্যে অনেক ছাত্র ছাত্রী কেঁদেছিল, স্যারও কান্না কান্না ভাবে কথা বলেছে। মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন স্যারকে কেন্দ্র করে মজিদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের আরো বিদায়ী স্যারকে সংবর্ধনা দেয়া সাবেক ছাত্ররা।

Read More

অবসরে গেলেন মজিদপুর উচ্চ বিদালয়ের জনপ্রিয় শিক্ষক মোশারফ হোসেন

Shahzaman Shuvoh No Comments

অবসরে গেলেন মজিদপুর উচ্চ বিদালয়ের জনপ্রিয় শিক্ষক মোশারফ হোসেন

কুমিল্লা থেকে মোহাম্মদ শাহজামান শুভঃ

গত ০৩রা মার্চ ২০১৯ তারিখ তিতাস উপজেলার মজিদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের জনপ্রিয় শিক্ষক মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন এর শেষ কর্মদিবস।

জনাব মোশারফ হোসেন স্যারের বিদায় উপলক্ষ্যে মজিদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে এক অনানম্বড় বিদায় সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। জনাব মোশারফ হোসেন স্যার বিদায়ে তিতাস  উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস  চেয়ারম্যান ও মজিদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি জনাব মজিবুর রহমান  বলেন, শিক্ষকদের পরিচয় সব সময়ই শিক্ষক থাকে। শিক্ষকরা সর্বক্ষেত্রেই পূজনীয় থাকেন সবার কাছে। শিক্ষকরা নিজেদের কর্মদক্ষতা ও যোগ্যতা দিয়ে একজন মানুষকে অন্ধকার থেকে বের করে আলোর পথে নিয়ে আসেন। যার ফলে আমরা পেয়ে থাকি সুন্দর জীবন। শিক্ষকরাই সকলের পথ প্রদর্শক। শিক্ষকদের কাছ থেকে শিক্ষা গ্রহণের ফলেই আমরা আজ যে যাঁর অবস্থানে আসতে পেরেছি, তা না হলে সম্ভব হতনা। মজিদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জনাব রেজাউল হক আবেগী কন্ঠে বলেন, মোশারফ হোসেন স্যার আমার দীর্ঘদিনের সহকর্মী, তিনি বিদ্যালয়ের সার্বিক উন্নয়ন ও শিক্ষার গুনগত উন্নায়নে আমাকে অনেক পরামর্শ দিতেন। তার বিদায়ে আমি আমার পরামর্শক এবং এই বিদ্যালয় একজন আদর্শ শিক্ষক হারালো। মজিদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সকল ছাত্র/ছাত্রী তিনি একজন প্রিয় শিক্ষক। Read More