শ্রেণি কক্ষের খোঁজে বিলেত ভ্রমণ

হিথ্রো থেকে ঢাকা হযরত শাহজালাল (রা.) আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর

Shahzaman Shuvoh No Comments

খুব ভোরে আমাদেরকে হিথ্রো বিমান বন্দরের গেইটে নামিয়ে উইলিয়াম ক্রিস এবং গাড়ির ড্রাইভার আমাদের কাছে থেকে বিদায় নিল। হিথ্রো বিমান বন্দরে ডুকাও একটি বিশাল কাজ। নানা রকম চেকিং পার করতে হয়। হাতে কোন তরল বা জেলি জাতীয় কিছুই রাখতে পারিনি। আমার হ্যান্ড ব্যাগে ভেসলিন ছিল যা শীতের কারণে ব্যবহার করতাম তাও ফেলে দিতে হলো। সবচেয়ে মজার বিষয় হলো আমাদের প্রধান শিক্ষকের স্ত্রী কিছু নাড়ু (মিষ্টি জাতীয় খাদ্য বা পিঠা) দিয়েছিল খাবারের জন্য। আমরা সবগুলো খেতে পারিনি। ফলে কিছু ফেরত আনতে চেয়েছিলাম।  আমাদের একজন বলল এইগুলো বোম মনে করলে খবর আছে। সাথে সাথে নাড়ু এবং পিঠা ডাস্টবিনে ফেলে দিলাম। হাতে খাবার পানি পর্যন্ত রাখতে পারিনি। খুব কঠিন ভাবে আমাদের চেকিং করল। চেকিং এর সময় আমাদের জোতিষ চন্দ্র রায়কে আলাদা করে বিশেষ কক্ষে নিয়ে চেকিং করেছে। ল্যাপটপ, ব্যাগ, বেইল, জুতা ইত্যাদি সবই পূঙ্খানুরূপে চেকিং করেছে। এয়ারপোর্টের পুলিশি মেট্রোপলিটন পুলিশের বিমান নিরাপত্তা সিকিউরিটি ইউনিটের দায়িত্ব, যদিও গৃহযুদ্ধের বর্মযুক্ত যানবাহন সহ সেনাবাহিনী মাঝে মাঝে উচ্চতর নিরাপত্তার সময় বিমানবন্দরে স্থাপন করা হয়েছে। Read More

যুক্তরাজ্য থেকে বিদায়ের বেলা

Shahzaman Shuvoh No Comments

১৫ জুন ২০১৫, আজ আমাদের বিদায়ের পালা। আজ সকালে ঘুম থেকে উঠে গেস্ট হাউজের মালিকের সাথে সকাল বেলা হাটলাম। তারপর গোসল করে সকালে নাস্তা করলাম। আমাদের সবাই আজ বাড়ির জন্য প্রস্তুত। তবে আজও বিদ্যালয়ে যেতে হবে। বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীদের নিকট হতে বিদায় নিতে হবে। যথা সময়ে লরা লিন্ডা গাড়ি নিয়ে আসল। আমি ও প্রধান শিক্ষক গাড়িতে উঠে বিদায় সংক্রান্ত আলাপই করলাম। লরা লিন্ডা বাংলাদেশে আসলে কী কী নিয়ে আসতে হবে বা খানার মেনু কী হবে ইত্যাদি। Read More

প্রধান শিক্ষকও আমার সাথে যুক্তরাজ্যে যেতে চায়

Shahzaman Shuvoh No Comments

আমি প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আলাউদ্দিন ভূইয়াকে বললাম, স্যার আমি তো যুক্তরাজ্যে যাব। আমাদের প্রজেক্টের আবেদন মঞ্জুর হয়েছে। আমি বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাজ্যে আমার স্কুল পার্টনার স্কুলে যাব আর লরা লিন্ডা বাংলাদেশে আমাদের বিদ্যালয়ে (বাতাকান্দি সরকার সাহেব আলি আবুল হোসেন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়) আসবে। প্রধান শিক্ষক হেঁসে হেসে বললেন, তুমি যুক্তরাজ্যে গেলে আমাকেও সাথে নিতে হবে নতুবা তোমাকেও যাবার অনুমতি দেব না। Read More

বৃট্রিশ কাউন্সিলের কানেক্টিং ক্লাশরুম

Shahzaman Shuvoh No Comments

২০১৩ সাল থেকে আমি বৃট্রিশ কাউন্সিলের কানেক্টিং ক্লাশরুমের সাথে জড়িত। ২০১৪ সালে বৃট্রিশ কাউন্সিলের কানেক্টিং ক্লাশরুম টিমের সাহায্যে ইউকে স্কুল পার্টনার পাই। তারপর থেকে কানেক্টিং ক্লাশরুম এর প্রজেক্টে কাজ শুরু। শুরুতেই চার্লস বাইন কমিউনিউনিটি প্রাইমারি শিক্ষক লরা লিন্ডা আমার প্রজেক্ট ও একশন প্লানে সহায়তা করেছে। আমাদের উভয়ের সম্মতিতেই একশন প্লান অনুযায়ী প্রজেক্ট চালিয়েছি। আমাদের প্রজেক্টের খুটি নাটি বা কমিউনিকেশনে সমস্যা হলে বৃট্রিশ কাউন্সিলের সাকিল সিনহা এবং ফারিয়া আমাকে সহায়তা করতো। আমার কাছে ফলপ্রসু প্রজেক্ট মনে হয় ‘Neat and Clean’ কারণ এই প্রজেক্টে কাজ সময় আমি যখন ছাত্র/ছাত্রী নিয়ে বিদ্যালয়ের ক্লাশরোম এবং বিদ্যালয়ের আঙ্গিনা পরিস্কার করতাম তখন প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আলাউদ্দিন ভূইয়া উৎসাহ দিতেন। কিন্তু বিষয়টি সার্বজনীন করতে পারিনি। আশার আলো হলো ২০১৯ সালে সরকারী একটি সার্কুলার হলো প্রতি বৃহস্পতিবার বিদ্যালয় ছাত্র/ছাত্রী দিয়ে বিদ্যালয় পরিস্কার পরিছন্ন করতে হবে। Read More

যুক্তরাজ্যের ছয় মাসের মাল্টিপল ভিসা পেলাম

Shahzaman Shuvoh No Comments

১১ মে ২০১৫ এর প্রায় ১৪দিন পর ভিসা পেলাম। ভিসা পাবার দিন আবার দেখা হল রতন কুমার বশিক, শ্রী যোতিষ রায়, তিলক চন্দ্র, পীযুষের সাথে। পাসপোর্ট খুলে খুব দ্রুত দেখলাম ভিসা পেয়েছি কি না। আমি দেখালাম আমি ভিসা পেয়েছি।

Read More