তিতাস দাউদকান্দি আন্তঃযোগাযোগ সীমিত
সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে কঠোর প্রশাসন

নাজমুল করিম ফারুক :
তিতাস থেকে দাউদকান্দি উপজেলা অথবা দাউদকান্দি থেকে তিতাস উপজেলার আন্তঃযোগাযোগ সীমিত করেছে উভয় উপজেলা প্রশাসন।

সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক কুমিল্লার প্রতিটি উপজেলা লকডাউন ঘোষণা করায় এ যোগাযোগ সীমিত করা হয়েছে। তবে তিতাস উপজেলার জিয়ারকান্দি, শোলাকান্দি ও দড়িকান্দি গ্রামের কিছু ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর বাজারে থাকায় কিছু সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সিদ্ধান্ত সমূহ :
১. সাধারণ জনগণের অবাধ চলাফেরা নিয়ন্ত্রণে বুধবার থেকে জিয়ারকান্দি ব্রিজের উভয় পাশে দুই থানার উদ্যোগে দুটি চেকপোস্ট কাজ করবে।

২. জরুরী প্রয়োজনে প্রমাণাদি সাপেক্ষে একপাড়ের লোকজন অন্যপাড়ে যেতে পারবেন তবে এটা খুব সীমিত। বিশেষ করে ব্যাংকে টাকা লেনদেনের চেকের তারিখ ও টাকার রশিদ উপস্থাপন করতে হবে।

৩. দুইপাড়ের কাঁচামালের ব্যবসায়ীরা দুই থানার প্রধান কর্মকর্তার অনুমতি সাপেক্ষে যাতায়াত করতে পারবেন।

৪. তবে জরুরী সেবায় নিয়োজিত ও নিত্য প্রয়োজনীয় সরবরাহকৃত যান চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।

উক্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণকালে উপস্থিত ছিলেন তিতাস উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার, দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী সুমন, তিতাস উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছাম্মদ রাশেদা আক্তার, দাউদকান্দি উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. সেলিম শেখ, তিতাস থানার অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ আহসানুল ইসলাম, গৌরীপুর তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. আব্দুল নূর, তিতাস উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শওকত আলী ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মহসীন ভূঁইয়া প্রমুখ।

Comments are closed.