আজ ০৯ এপ্রিল ২০২০ তিতাস উপজেলায় একটি খবর সোশাল মিডিয়া ভাইরাল হয়েছে। তিতাসে করোনা ভাইরাস রির্পোট পজিটিভ এসেছে। খবরটি হলো আমাদের নাছির উদ্দিন স্যারের বাল্যবন্ধু বিরামকান্দি গ্রামের জালাল করোনা ভাইরাস এ আক্রান্ত। নাছির উদ্দিন (বাতাকান্দি সরকার সাহেব আলি আবুল হোসেন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক) স্যার তাঁর ফেসবুকে লিখেছেন, “আমার কষ্ট হয় কারন সে আমার ক্লাসমেট ও বন্ধু আল্লাহ তার হেফাযত করুক”।

গত ০৬ এপ্রিল ২০২০ কুমিল্লার তিতাসে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে ২ ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করেছে উপজেলা স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সোমবার সকালে থেকে দুপুর পর্যন্ত উপজেলার কড়িকান্দি ইউনিয়নের বিরামকান্দি ও কলাকান্দি থেকে এ নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. সরফরাজ হোসেন খান জানান, কলাকান্দি গ্রামের মাসুদ সরকার (২১) সে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসেছিল। কর্মরত ডাক্তার মনে করেছে তার নমুনা সংগ্রহ করা উচিত তা করা হয়েছে। সে ঢাকার মালিবাগ এলাকায় বসবাস করে একটি কলেজে অধ্যায়ণরত ছিল।

বিরামকান্দি জালাল হোসেন (৫৫) সেও ঢাকার নন্দীপাড়া একটি চাউলের দোকানে কাজ করতো। স্থানীয় লোকজন জালালের বিষয়টি প্রশাসনকে অবহিত করলে সে প্রেক্ষিতে তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

আজ কড়িকান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মহসিন ভূইয়ার ফেসবুক ওয়ালে তিতাস উপজেলার বিরামকান্দি গ্রামের জালাল করোনা ভাইরাসের পজিটিভ রির্পোটের ছবিসহ প্রকাশ করেছেন। তিনি সম্ভবত মানুষকে সচেতন হবার জন্য এটি পোস্ট করেছেন। গত মার্চ মাস থেকে করোনা ভাইরাস সচেনতার কাজ করে যাচ্ছেন তিতাস উপজেলার চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার, মোহাম্মদ মহসিন ভূইয়া, নুর নবি চেয়ারম্যানসহ অন্যান্য সহযোগীবৃন্দ।

তিতাস উপজেলার জালালের করোনা ভাইরাস পজিটিভ রির্পোট পাবার পর পরই তিতাস উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা বিরামকান্দি,মনারইকান্দি এবং গাজীপুর গ্রামকে লক-ডাউন ঘোষণা করেছেন। ইতিপূর্বে তিতাস উপজেলার চেয়ারম্যান তিতাস উপজেলার সকল গ্রামেই সামাজিক লক-ডাউন ঘোষণা

করেছিল।  সামাজিক লক ডাউন নিয়ে তিতাস উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি নাজমুল করিম ফারুক লিখেছেন “তিতাসে প্রাচীনপন্থায় গ্রামগুলোতে সামাজিক
লকডাউন : গ্রাম্য সড়কে যান চলাচল বন্ধ

নাজমুল করিম ফারুক : কুমিল্লার তিতাসে করোনা ভাইরাসের প্রদুর্ভাব থেকে রক্ষার্থে প্রাচীনপন্থায় গ্রামগুলোতে সামাজিক লকডাউন করা হয়েছে। উপজেলা চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকারের নির্দেশনায় ইউপি চেয়ারম্যানদের সার্বিক তত্ত্বাবধানে স্থানীয় সচেতনমহল ও যুবসমাজ মঙ্গলবার সকাল থেকে তা বাস্তবায়ন করেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, করোনা ভাইরাসের আক্রমণ রোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার লক্ষ্যে সোমবার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উপজেলা চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও যুবসমাজকে গ্রামগুলোকে সুরক্ষার স্বার্থে গ্রামের প্রবেশমুখ বন্ধ রাখার আহ্বায়ন জানান। মঙ্গলবার সকাল থেকে উপজেলার প্রতিটি গ্রামের প্রবেশমুখে প্রাচীনপন্থায় গাছ-গাছালির ডাল, বাঁশ ও গাছের গুড়ি ফেলে যান চলাচল ও জনগণের অবাধ চলাফেরা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

ফোনে এলাকার একাধিক ব্যক্তি জানান, গ্রামগুলোর মানুষকে সুরক্ষার জন্য গ্রামবাসীর উদ্যোগেই গ্রামগুলো লকডাউন ঘোষনা করেছে। উপজেলার প্রতিটি গ্রামের সংযোগ সড়কগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বিশেষ কারণ ছাড়া যাতে এক গ্রামের লোক অন্য গ্রামে আসা যাওয়া করতে না পারে, যানবাহন চলাচল করতে না পারে সেই জন্যই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি গ্রামের চায়ের দোকানে আড্ডা, অবাধ চেলাফেরা না করার জন্যও বিভিন্ন গ্রামে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসা. রাশেদা আক্তার বলেন, প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন গ্রাম লকডাউন করা হয়নি। তবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য যদি জনপ্রতিনিধিগণ গ্রামগুলোকে লকডাউন করেন তাহলে প্রশাসনের দ্বিমত করার কোন সুযোগ নেই।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার বলেন, এই মুহুর্তে আমাদের আরো সচেতন হওয়ার প্রয়োজন। নিজ ঘরে অবস্থান ছাড়া এখন করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি পাওয়ার কোন উপায় নেই। তাই ভবিষ্যৎ তিতাসের কথা চিন্তা করে মঙ্গলবার ভোর থেকে উপজেলার প্রতিটি গ্রামকে সামাজিক লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে”।

 

আজ (০৯/০৪/২০২০) পর্যন্ত পৃথিবীতে  মোট আক্রান্তের সংখ্যাঃ ১৫,১৮,৭৭৩

আজ (০৯/০৪/২০২০)  পর্যন্ত পৃথিবীতে  মোট মৃতের সংখ্যাঃ ৮৮৫০৫

আজ(০৯/০৪/২০২০)  পর্যন্ত পৃথিবীতে  মোট সুস্থ্য হবার সংখ্যাঃ ৩,৩০,৫৮৯

নিম্নে  কোবিড-১৯ বাংলাদেশে আজ (০৯/০৪/২০২০) পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের তারিখ ও সংখ্যা দেয়া হলোঃ

২০২০খ্রি. মার্চ-০৮ঃ ০৩

২০২০খ্রি. মার্চ-০৯ঃ ০৩

২০২০খ্রি. মার্চ-১০ঃ ০৩

২০২০খ্রি. মার্চ-১১ঃ ০৩

২০২০খ্রি. মার্চ-১২ঃ ০৩

২০২০খ্রি. মার্চ-১৩ঃ ০৩

২০২০খ্রি. মার্চ-১৪ঃ ০৫

২০২০খ্রি. মার্চ-১৫ঃ ০৫

২০২০খ্রি. মার্চ-১৬ঃ ০৮

২০২০খ্রি. মার্চ-১৭ঃ ১০

২০২০খ্রি. মার্চ-১৮ঃ ১৪

২০২০খ্রি. মার্চ-১৯ঃ ১৮

২০২০খ্রি. মার্চ-২০ঃ২০

২০২০খ্রি. মার্চ-২১ঃ২৪

২০২০খ্রি. মার্চ-২২ঃ২৭

২০২০খ্রি. মার্চ-২৩ঃ৩৩

২০২০খ্রি. মার্চ-২৪ঃ৩৯

২০২০খ্রি. মার্চ-২৫ঃ৩৯

২০২০খ্রি. মার্চ-২৬ঃ৪৪

২০২০খ্রি. মার্চ-২৭ঃ৪৮

২০২০খ্রি. মার্চ-২৮ঃ৪৮

২০২০খ্রি. মার্চ-২৯ঃ৪৮

২০২০খ্রি. মার্চ-৩০ঃ৪৯

২০২০খ্রি. মার্চ-৩১ঃ৫১

২০২০খ্রি. এপ্রিল-০১ঃ ৫৪

২০২০খ্রি. এপ্রিল-০২ঃ ৫৬

২০২০খ্রি. এপ্রিল-০৩ঃ ৬১

২০২০খ্রি. এপ্রিল-০৪ঃ ৭০

২০২০খ্রি. এপ্রিল-০৫ঃ ৮৮

২০২০খ্রি. এপ্রিল-০৬ঃ ১২৩

২০২০খ্রি. এপ্রিল-০৭ঃ ১৬৪

২০২০খ্রি. এপ্রিল-০৮ঃ ২১৮

২০২০খ্রি. এপ্রিল-০৯ঃ ৩৩০

1 Comment

Shahzaman ShuvohApril 9, 2020 at 10:50 pm

দোয়া করি সবার জন্য তিতাস উপজেলাকে আল্লাহ ভালো রাখেন। আমিন
ধন্যবাদ জানাই শুভ স্যারকে